সব
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮
DBBL Ad

ইব্রাহিমোভিচের অষ্টম লাল কার্ড

বাতিলই হলো পাকিস্তানের বাংলাদেশ সফর

দক্ষিণ আফ্রিকায় পাকিস্তানের দ্বিতীয় সিরিজ জয়

আপডেট : ০৮ এপ্রিল ২০২১, ১১:০১

অস্ট্রেলিয়ার পর দ্বিতীয় দল হিসেবে পাকিস্তান দক্ষিণ আফ্রিকায় দ্বিপক্ষীয় ওয়ানডে সিরিজ জয়ের কীর্তি গড়ল। বুধবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচে পাকিস্তান স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২৮ রানে হারিয়ে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয় করে নেয়। পাকিস্তানের করা ৩২০ রানের জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা ২৯২ রানে অল আউট হয়।

এদিকে সিরিজ জয়ের মাঝ দিয়ে পাকিস্তান ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে এল। এ সিরিজ থেকে পাকিস্তান ২০ পয়েন্ট পেয়েছে। ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তানের পয়েন্ট ৪০। তবে রান গড়ে ইংল্যান্ড সবার উপরে। তারপরে পাকিস্তান। আর তৃতীয় স্থানে অস্ট্রেলিয়া।

সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে দুই দল মিলে ১১টি পরিবর্তন এনেছিল। দক্ষিণ আফ্রিকা দলে পরিবর্তন ছিল সাতটি, পাকিস্তান দলে চারটি। দলে এত পরিবর্তন থাকলে নিজেকে অপরিবর্তনীয় রেখেছিলেন পাকিস্তান ওপেনার ফখর জামান। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছেন তিনি।

প্রথম পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান হিসেবে ফখর জামান দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে একের বেশি সেঞ্চুরি করার কৃতিত্ব দেখালেন। তাছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজে সবচেয়ে বেশি রান করারও কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। আগের ম্যাচে ১৯৩ রান করা ফখর জামান এ ম্যাচে ১০১ রানের ঝলমলে ইনিংস খেলেছেন।

টস হারের পর ফখর জামান ও ইমাম উল হকের সূচনা ছিল দারুণ। ১১২ রানের পার্টনারশিপ তাদের। ৫৭ রানে কেশভ মহারাজের বলে আউট হন ইমাম উল হক। কেশভ মোট ৩ উইকেট নিয়েছেন।

ইমামের উইকেট হারানোর পর দ্বিতীয় উইকেটেও ব্যাটিংয়ে আধিপত্য করেছে পাকিস্তান। ফখর জামান ও অধিনায়ক বাবর আজম ৯৪ রান যোগ করেন। ১০১ রানে আউট হন ফখর জামান। ১০৪ বলে ৯টি বাউন্ডারি ও তিন ওভার বাউন্ডারিতে এ রান করেন তিনি। তবে শেষ সময়ে আফসোস হতে পারে বাবর আজমের। সেঞ্চুরি পেতে গিয়েও পেলেন না। চেষ্টা করেছিলেন শেষ বলে ৬ মেরে তিন অঙ্কের জাদুকরী রানে পৌঁছাতে। কিন্তু ধরা পড়ে গেলেন। ৯৪ রানে আউট হয়ে ফিরতে হয় তাকে। ৮২ বলে এ রান করেন তিনি। সাতটি বাউন্ডারি ও তিনটি ওভার বাউন্ডারি মেরেছেন পাকিস্তান অধিনায়ক।

মাঝে পাকিস্তানের চার ব্যাটসম্যান আসা যাওয়া করলেও দলে তাদের অবদান খুবই কম। তবে হাসান আলী ব্যাটিং তাণ্ডব করেছেন। মাত্র ১১ বলে ৩২ রান করেছেন। চারটি ওভার বাউন্ডারি মেরেছেন।

জবাবে জয় না পেলেও দারুণ লড়াই করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ওপেনার জানেমান মালানের ৭০ রানের ঝলমলে ইনিংস তো রয়েছেই। ১৪০ রানের মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা ৫ উইকেট হারানোর ষষ্ঠ উইকেটে দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলেছিলেন কাইল ভেরেনি ও আন্দিল ফেলুকাওয়া। ১০৮ রানের পার্টনারশিপ তাদের। ভেরেনি ৫৩ বলে ৬২ রান করেন। ফেলুকাওয়া ৬১ বলে ৫৪ রান করেন।

পাকিস্তানের সফল বোলার ছিলেন মোহাম্মদ নাওয়াজ ও শাহীন শাহ আফ্রিদি। দুজনে তিনটি করে উইকেট নেন।

পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম ম্যাচ সেরা হয়েছেন। আর সিরিজ সেরা ফখর জামান।
/এসএইচ/

ইব্রাহিমোভিচের অষ্টম লাল কার্ড

ইব্রাহিমোভিচের অষ্টম লাল কার্ড

বাতিলই হলো পাকিস্তানের বাংলাদেশ সফর

বাতিলই হলো পাকিস্তানের বাংলাদেশ সফর

গোল করেই চলেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে

গোল করেই চলেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে

দশজনের দল লিডসের কাছে ম্যানসিটির হার

দশজনের দল লিডসের কাছে ম্যানসিটির হার

দিল্লির কাছে চেন্নাইয়ের হার

দিল্লির কাছে চেন্নাইয়ের হার

টিভিতে ১১ এপ্রিলের খেলা

টিভিতে ১১ এপ্রিলের খেলা

Islami Bank Ad