সব
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮
DBBL Ad

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

চীনা প্রযুক্তির বিরুদ্ধে বাইডেন প্রশাসনের প্রথম পদক্ষেপ

‘ব্যর্থ অভ্যুত্থানের’ পর জর্ডানের প্রতি সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র নেড প্রাইস নিশ্চিত করেছেন যে ওয়াশিংটন এই ঘটনাগুলো ‘নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে’। তিনি বলেন, ‘আমরা জর্ডানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছি। বাদশাহ আবদুল্লাহ যুক্তরাষ্ট্রের মূল সহযোগীদের একজন এবং তার প্রতি আমাদের পুরো সমর্থন রয়েছে।’

আপডেট : ০৫ এপ্রিল ২০২১, ১৯:৪৫

জর্ডানে অভ্যুত্থান ষড়যন্ত্র নস্যাতের পর আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক মিত্ররা দেশটির বর্তমান প্রশাসনের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় আম্মানে এক ব্যর্থ অভ্যুত্থানের প্রচেষ্টা-সম্পর্কিত খবর শোনার পর সৌদি আরব দ্রুত প্রতিক্রিয়া জানায়।

প্রতিবেশী রাষ্ট্র সৌদি আরবের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘জর্ডানের হাশেমি রাজ্য এবং রাজা দ্বিতীয় আবদুল্লাহ ও ক্রাউন প্রিন্স হুসেইনের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা রক্ষার জন্য গৃহীত সিদ্ধান্ত এবং ব্যবস্থার ওপর সৌদি রাজ্য সম্পূর্ণ সমর্থন দেয়।’

এর কিচ্ছুক্ষণ আগে একটি রিপোর্টে বলা হয়, জর্ডানের একজন সাবেক যুবরাজ, একজন সৌদি নাগরিকসহ প্রায় ২০ জন ব্যক্তিকে আটক করেছে জর্ডান কর্তৃপক্ষ। এই রিপোর্টে আরো বলা হয়, এই সরকারের পতন ঘটানোর একটি দীর্ঘ ষড়যন্ত্রের সঙ্গে তারা জড়িত রয়েছে।

মধ্যপ্রাচ্যের একজন ঊর্ধ্বতন গোয়েন্দা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, দেশের স্থিতিশীলতার জন্য হুমকিস্বরূপ একটি বিষয়ে চলমান তদন্তের কারণে রাজকুমার হামজা বিন হুসেইনকে তার আম্মান প্রাসাদ থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, প্রয়াত রাজা হুসেইনের বড় ছেলে তার নিজের ভাই এবং রাজা বাদশাহ দ্বিতীয় আবদুল্লাহকে ক্ষমতাচ্যুত করার পরিকল্পনায় জড়িত বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ ছাড়া রাজপরিবারের আরেকজন সদস্য শরীফ হাসান গ্রেপ্তার হয়েছেন। সৌদি নাগরিক এবং জর্ডানের রয়েল হাশেমাইট কোর্টের সাবেক প্রধান বাসেম আওদুল্লাহকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে জর্ডানের চিফ অব স্টাফ মেজর জেনারেল ইউসুফ আহমেদ আল-হুনাইতি জর্ডানের রাজপুত্রের গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করতে না পারলেও এই সংবাদের সমর্থনে কথা বলেছেন।

আল-হুনাইতি বলেন, জর্ডানের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নষ্ট করার লক্ষ্যে পরিচালিত আন্দোলন এবং কার্যক্রম বন্ধ করার জন্য প্রিন্স হামজাহকে অনুরোধ করা হয়েছিল।

ঘটনার বিস্তারিত প্রকাশ করে কোনো বিবরণ প্রকাশ করা হয়নি, তবে সূত্র জানিয়েছে যে এটি ‘সুসংহত’ এবং ‘বিদেশি’ ষড়যন্ত্র এর সঙ্গে জড়িত ছিল। 

অন্যদিকে রাষ্ট্রীয় সংস্থা পেট্রা নিউজ জানিয়েছে, রয়াল হাইনেস, প্রিন্স হামজাহ বিন আল হুসেইন গৃহবন্দী নন এবং তাকে আটকও করা হয়নি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র নেড প্রাইস নিশ্চিত করেছেন, ওয়াশিংটন এই ঘটনাগুলো ‘নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে’। তিনি বলেন, ‘আমরা জর্ডানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছি। বাদশাহ আবদুল্লাহ যুক্তরাষ্ট্রের মূল সহযোগীদের একজন এবং তার প্রতি আমাদের পুরো সমর্থন রয়েছে।’

এ ছাড়া কাতার, মিসর এবং কুয়েত বিবৃতি জারি করেছে। অন্যদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মন্তব্যের মাধ্যমে ইসরায়েল এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের সমর্থনের অভাব সম্পর্কে কথা বলেছেন বিশ্লেষকরা।

সূত্র: আল অ্যারাবি

/এফসি/

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

চীনা প্রযুক্তির বিরুদ্ধে বাইডেন প্রশাসনের প্রথম পদক্ষেপ

চীনা প্রযুক্তির বিরুদ্ধে বাইডেন প্রশাসনের প্রথম পদক্ষেপ

ভারতে একদিনে আক্রান্ত ১ লাখ ২৬ হাজার 

ভারতে একদিনে আক্রান্ত ১ লাখ ২৬ হাজার 

ভোটপ্রচারে বাধ্যতামূলক মাস্ক এবং দূরত্ব

ভোটপ্রচারে বাধ্যতামূলক মাস্ক এবং দূরত্ব

লন্ডন দূতাবাসে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না

লন্ডন দূতাবাসে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না

ধর্মের ভিত্তিতে ভোট চাওয়ায় মমতাকে নোটিশ

ধর্মের ভিত্তিতে ভোট চাওয়ায় মমতাকে নোটিশ

Islami Bank Ad